মঠবাড়িয়ায় আপত্তিকর লেখা ও ছবি ফেসবুকে ছড়ানোয় সাবেক স্বামী গ্রেফতার - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Tuesday, 29 October 2019

মঠবাড়িয়ায় আপত্তিকর লেখা ও ছবি ফেসবুকে ছড়ানোয় সাবেক স্বামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মঠবাড়িয়ায় সাবেক স্ত্রীর ছবি ও আপত্তিকর লেখা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে সাবেক স্বামী আব্দুল কাইয়ুম (৩৬) কে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার রাতে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর একটি দল কাইয়ুমকে তার নিজ বড়ি থেকে আটক করে মঠবাড়িয়া থানায় সোপর্দ করে। এ ঘটনায় সাবেক শ^শুর পলাশ শেখ শিমুলের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারকৃত কাইয়ুমকে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত কাইয়ুম উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের মৃত. মতিউর রহমান বেপারীর ছেলে।পারিবারিক ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত প্রায় ৫ বছর আগে দু’পক্ষের সম্মতিতে পারিবারিক প্রস্তাবের মাধ্যেমে বাগেরহাট জেলার কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড এলাকার পলাশ শেখ শিমুলের মেয়ে বৃস্টির (১৯) সাথে উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের মৃত. মতিউর রহমান বেপারীর ছেলে কাউয়ুমের বিয়ে হয় । এ দম্পত্তির ৩ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহের জেরে গত ৪ সেপ্টেম্বর ১৮’ তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের পর থেকে ক্ষিপ্ত থাকা সাবেক স্বামী কাইয়ুম তার সাবেক স্ত্রী বৃষ্টির ছবি ও আপত্তিকর লেখা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। এ নিয়ে ভুক্তভোগী বৃষ্টির বাবা পলাশ শেখ শিমুল বরিশাল র‌্যাব-৮ বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিলে তারা কাইয়ুমকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করে। পরে সোমবার রাতে মঠবাড়িয়া থানায় বৃষ্টির বাবা পলাশ শেখ শিমুল বাদী হয়ে একটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কাইয়ুমকে প্রধান ও অজ্ঞাত আরও ৩ জনকে আসামী করে মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকত মঠবাড়িয়া থানার এসআই সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে বিবাদ লেগেই থাকত। তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহের কারনেই প্রায় ১বছর আগে স্বামী-স্ত্রীর উভয়ের সম্মতিতে তালাক হয়। পরে সাবেক স্বামী মুঠোফোনে সাবেক স্ত্রীকে বিরক্ত করতেন। সাবেক স্ত্রীর ছবি ও আপত্তিকর লেখা ছড়িয়ে দেয়। গ্রেফতারকৃত কাইয়ুমের মুঠোফোনটি জব্দ করা হয়েছে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here