মঠবাড়িয়ায় সরকারি ঘর দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাত অভিযোগ পাওয়া গেছে - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Sunday, 24 November 2019

মঠবাড়িয়ায় সরকারি ঘর দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাত অভিযোগ পাওয়া গেছে

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর নিরঞ্জন শিকারীর বিরুদ্ধে সরকারি ঘর পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন জনের নিকট থেকে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা দীর্ঘদিন পর গত ১৪ নভেম্বর জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ৬ নং টিকিকাটা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বড় শিঙ্গা গ্রামের মেম্বর নিরঞ্জন শিকারী অভিযোগ স্বীকার করে ওই টাকা ফেরত দিবেন বলে জানিয়েছেন।অভিযোগে জানা যায়, ‘জায়গা আছে ঘর নেই প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে বরাদ্দকৃত ঘর ও গভীর নলকূপ পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে ইউপি সদস্য নিরঞ্জন বেশ কয়েকজন হত দরিদ্রের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা করে কয়েক লক্ষ টাকা আদায় করেন। কিন্তু ৩ বছর অতিবাহিত হলেও তিনি ঘর দিতে ব্যর্থ হন। ভুক্তভোগীরা ঘরের পরিবর্তে টাকা ফেরত চাইতে গেলে ইউপি সদস্য তাদের হয়রানি করতে থাকেন। তাই প্রতিকার পেতে ক্ষতিগ্রস্হরা উক্ত ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।টিকিকাটা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কুদ্দুচ মৃধা জানান,৩ বছর আগে ঘর পাইয়ে দেওয়ার কথা। আমার কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা নিয়েছে। আমরা দিনমজুর হলেও ধার দেনা করে টাকাটা দিয়েছি।একই এলাকার মৃত.আনোয়ারের স্ত্রী হালিমা বেগম জানান, আমার ভাসুর আলম মৃধার কাছ থেকে ঘর দেওয়ার কথা বলে আমাদের মেম্বার ১৫ হাজার টাকা নিয়েছে। আলম মৃধা চট্রগ্রামে কাজ করে ২/১ দিনের মধ্যেই আসবে।স্হানীয় মজিবুর রহমান (অবঃ সেনাবাহিনী) জানান,”বিষয়টি অবগত আছি। মেম্বর বাবুর সাথে দেখা হলে ভুক্তভোগীদের টাকা পয়সা ফেরত দিতে বলব।ইউপি সদস্য নিরঞ্জন শিকারী জানান,”ঘরতো না দেওয়ার কথা কেউ বলে নাই।ঘর পাবে একটু দেরী হচ্ছে।অপেক্ষা করতে হবে।”তবে টাকা নেওয়ার বিষয়টি তিনি স্বীকার করেছেন।ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন বিগত সাড়ে ৩ বছরে আমার ইউনিয়ন পরিষদে এ ধরনের ঘটনা হয় নাই।এই প্রথম শুনলাম। ভুক্তভোগীরা আমার কাছে কোন অভিযোগ দেয় নি। অভিযোগ আসলে বিষয়টি দেখব।”উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিলন তালুকদার জানান ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বর নিরঞ্জন শিকারীর বিরুদ্ধে ঘর দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here