পিরোজপুরের সাবেক সংসদ সদস্য আউয়ালের বিরুদ্ধে ৩ মামলা হচ্ছে - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Monday, 23 December 2019

পিরোজপুরের সাবেক সংসদ সদস্য আউয়ালের বিরুদ্ধে ৩ মামলা হচ্ছে

অনলাইন ডেস্ক :: পিরোজপুর-১ আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংসদ এ কে এম এ আউয়ালের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর একটিতে আসামি হচ্ছেন তাঁর স্ত্রী লায়লা পারভীনও। আজ মঙ্গলবার কমিশনের সভায় মামলা তিনটি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন দুদকের মুখপাত্র প্রণব কুমার ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, চলতি সপ্তাহেই তিনটি মামলা হবে। এ ছাড়া সাবেক এই সাংসদ ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে তাঁদের সম্পদ বিবরণী নোটিশ জারির সিদ্ধান্তও হয়েছে।দুদক সূত্র জানিয়েছে, সাবেক সাংসদ এ কে এম এ আউয়াল অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে ছয়জন ভুয়া ব্যক্তিকে ভূমিহীন দেখিয়ে সরকারি খাস জায়গা ইজারা নেন। পরে ওই সরকারি জমিতে স্ত্রী লায়লা পারভীনের নামে তিন তলা ভবন তৈরি করে তা পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ভাড়া দেন। এ অভিযোগে আউয়াল ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করবে দুদক।একইভাবে স্বরূপকাঠি উপজেলার ডাকবাংলোর কাছে সরকারি খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে আধুনিক ডাক বাংলো নির্মাণ করেছেন সাবেক এই সাংসদ। এই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা হবে। পিরোজপুর শহরের খুমুরিয়া মৌজার রাজার পুকুর নামে পরিচিত ৪৪ শতাংশ সরকারি খাস জমির চারদিকে প্রাচীর দেয়াল নির্মাণ করে তা দখলে রাখার অভিযোগে আরেকটি মামলা হবে আউয়ালের বিরুদ্ধে।এ ছাড়া, সাবেক এই সাংসদ ও তাঁর স্ত্রীর অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়টিও অনুসন্ধান চলছে দুদকে। প্রাথমিক অনুসন্ধানে তাঁদের বিপুল সম্পদের তথ্য পেয়েছে সংস্থাটি। এরই ধারাবাহিকতায় তাঁদের কাছে সম্পদ বিবরণী চাওয়া হবে। এ বিষয়টিও কমিশন অনুমোদন দিয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে সবগুলো অভিযোগ অনুসন্ধান করছেন দুদকের উপপরিচালক মো. আলী আকবর।পিরোজপুর-১ আসন থেকে ২০০৮ ও ২০১৪ সালে পরপর দুবার আওয়ামী লীগের টিকিটে সাংসদ হন আউয়াল। তবে ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন পাননি। তাঁর জায়গায় মনোনয়ন পেয়ে সাংসদ নির্বাচিত হন বর্তমান গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here