মঠবাড়িয়ায় আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রীর দাখিল পরীক্ষা বন্ধ - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Friday, 14 February 2020

মঠবাড়িয়ায় আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রীর দাখিল পরীক্ষা বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় রিয়াজ বৈদ্য (৩০) নামে এক বখাটে কর্তৃক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চলমান দাখিল পরীক্ষার্থী এক ছাত্রী (১৫) কে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। ওই লম্পট ধর্ষণের সময় আপত্তিকর ভিডিও চিত্র মোবাইলে ধারণ করে রাখে। পরে ওই আপত্তিকর ভিডিও মোবাইলের ম্যাসেঞ্জারের

মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ধর্ষণের ঘটনা ফাঁস হলে দাখিল পরীক্ষার্থী লোকলজ্জায় দুটি পরীক্ষার পর পরীক্ষা দেয়া বন্ধ করে দিয়ে আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে আত্মগোপনে রয়েছে।এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার চালিতাবুনিয়া গ্রামের কাঠমিস্ত্রী হানিফ বৈদ্যর বখাটে পুত্র রিয়াজ বৈদ্য সম্প্রতি একই এলাকার সৌদি প্রবাসীর মেয়ে দাখিল পরীক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় বখাটে রিয়াজ ধর্ষণের আপত্তিকর ভিডিও নিজের মোবাইলে ধারণ করে রাখে। সম্প্রতি ওই আপত্তিকর ভিডিওটি বিভিন্ন মোবাইলের ম্যাসেঞ্জারে ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হওয়ার পর ওই দাখিল পরীক্ষার্থী পরীক্ষা বন্ধ করে আত্মগোপনে যায়। এরপর স্থানীয় একটি মহল ওই বখাটের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা উত্তোলন করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। এদিকে ওই আপত্তিকর ভিডিও বিভিন্ন ম্যাসেঞ্জারে ছড়িয়ে পড়লে বখাটে রিয়াজ গাঢাকা দেয়।স্থানীয় চৌকিদার নিজাম জানান, ওই বখাটে একজন লম্পট প্রকৃতির। তার বিরুদ্ধে একাধিক নারী গঠিত কেলেংঙ্কারীর অভিযোগ রয়েছে।সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য কবির হোসেন জানান, এর আগেও বখাটে রিয়াজ দুটি বিয়ে করে তালাক দেয়। মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুজ্জামান জানান, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। ধর্ষণের শিকার ওই মেয়েটি ও তার পরিবারের কাউকেই না পাওয়ায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। ঘটনার পর অভিযুক্ত ওই বখাটে পলাতক রয়েছে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here