মঠবাড়িয়ায় তৎকালীন শান্তি কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছেলে স্বাধীন দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের পিটিয়ে আহত করল - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Sunday, 29 March 2020

মঠবাড়িয়ায় তৎকালীন শান্তি কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছেলে স্বাধীন দেশে মুক্তিযোদ্ধাদের পিটিয়ে আহত করল

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হারুন অর রশিদ (৬৮) নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে বেধরক পিটিয়ে আহত করেছেন উপজেলা আইন-শৃঙ্খলার কমিটির সদস্য (নিকাহ রেজিষ্ট্রার) মাহমুদ কাজী। তিনি ও তার ভাই মামুন খন্দকার মিলে প্রতিপক্ষ মুক্তিযোদ্ধার ছোট ভাই ফিরোজ খন্দকারকে মারধর করা হয়। শনিবার বিকেলে উপজেলার বেতমোর গ্রামে এঘটনা মুক্তিযোদ্ধা ও তার ভাই এ হামলার শিকার হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। খবর পেয়ে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ আজ রোববার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মাহমুদ কাজী ও মামুন খন্দকার ওই গ্রামের তৎকালীন ইউনিয়ন শান্তি কমিটির সাধারণ সম্পাদক মৃত. মজিবর খন্দকার এর ছেলে। আহত মুক্তিযোদ্ধা হারুন অর রশিদ জানান, তার জমির সীমানার মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী মাহমুদ কাজী পাকা সিড়ি স্থাপন করতে গেলে তিনি বাঁধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাহমুদ কাজী ও তার ভাই মামুন খন্দকার তাকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। এসময় তার ভাই ফিরোজ খন্দকার বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। এ বিষয়ে অভিযুক্ত মাহমুদ কাজীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান বলেন, অভিযোগ শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রিপন বিশ্বাস জানান, এ হামলার বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করা হবে। তদন্তে দোষি প্রমানিত হলে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।  এদিকেমুক্তিযোদ্ধার ওপর এ ন্যাক্কারজনক হামলার নিন্দা জানিয়েছেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেতারা বিচার দাবি করেছেন।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here