মঠবাড়িয়ায় বসত-বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষ, আহত ৬ - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Friday, 10 April 2020

মঠবাড়িয়ায় বসত-বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষ, আহত ৬

স্টাফ রিপোর্টারঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বসত-বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আপন তিন ভাইসহ উভয় পক্ষের ছয়জন আহত হয়েছে।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের স্থানীয় নুরুল ইসলামপুর বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। স্বজনরা ওই রাতেই আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহত ও প্রতক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার বড়মাছুয়া ইউনিয়নের দক্ষিন বড়মাছুয়া গ্রামের মৃত. সফিল উদ্দিন হাওলাদারের পুত্র ব্যবসায়ী নুরুল ইসলামের সাথে ছোট ভাই নাসির উদ্দিনের ৪৫ শতাংশ বসত বাড়ির জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদে উভয় পক্ষের মধ্যে শালিস বৈঠক বিদ্যমান রয়েছে। গতকাল ওই বিরোধীয় জমিতে ছোট ভাই নাসিরের পক্ষ অবলম্বন করে অপর সেজ ভাই নুরুল হক মাষ্টার ওই বিরোধীয় জমিতে বেড়া ও পুকুরে গাছের শাঁকো দিতে গেলে বড় ভাই নুরুল ইসলাম ও তার পুত্ররা বাঁধা দেয়। এ সময় বাক বিতন্ডার এক পর্যায় উভয় পক্ষ ধাড়ালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে বড় ভাই নুরুল ইসলাম (৬০), তার সেজ ভাই ও মাঝেরচর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল হক (৫২) ছোট ভাই নাসির উদ্দিন (৪০), ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন (৩২), নুরুল ইসলামের পুত্র ও স্থানীয় একটি স্কুলের নৈশ প্রহরী সগির হোসেন (৩২) ও কলেজ ছাত্র শহিদুল ইসলাম (২৮) গুরুতর জখম হয়। বড়মাছুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নাসির উদ্দিন জানান, জমির মালিকানা নিয়ে নুরুল ইসলাম ও ছোট ভাই নাসির উদ্দিনের বিরোধ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের বৈঠক চুড়ান্ত ফয়সালার পর্যায় থাকলেও নুরুল হক মাষ্টার চলমান শালিস অগ্রাহ্য করে জমিতে বেড়া দিতে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাসুদ্দুজামান জানান, দু’পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here