মঠবাড়িয়ায় সংবাদকর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে: ভুক্তভোগী পরিবারের ওপর পুনরায় হামলা - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Friday, 1 May 2020

মঠবাড়িয়ায় সংবাদকর্মীরা তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে: ভুক্তভোগী পরিবারের ওপর পুনরায় হামলা

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ প্রতিনিধি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে একটি পরিবারের ওপর বারবার হামলা ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী পরিবারটি হামলা-মামলার শিকার হয়েও সুষ্ঠু ফয়সালার জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এঘটনায় স্থানীয় সাংবাদিকরা ঘটনার সত্যতা জানতে ঘটনাস্থলে গেলে তাদের উপস্থিতিতেই প্রতিপক্ষরা ভুক্তভোগীদের ওপর পুনরায় অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। ভুক্তভোগীর মামলা সূত্র জানাগেছে, উপজেলার বেতমোর গ্রামের আ. জলিল খাঁ এর ছেলে নুরুজ্জামান খাঁ এর সাথে মৃত সুলতান খাঁ এর ছেলে চাচাতো ভাই নুর মোহাম্মদ খাঁ এর দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ওই বিরোধ নিয়ে স্থানীয় ভাবে একাধিক বার সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং বর্তমানেও চলমান রয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে গত ২০ এপ্রিল সকালে নুরুজ্জামানের ঘরের সামনের উঠানে নুর মোহাম্মদ খাঁ, রুহুল আমিনের ছেলে নাসির হাওলাদারের নেতৃত্বে নারী-পুরুষ মিলে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জোর পূর্বক গোয়ালঘর নির্মাণ কাজ শুরু করে। এতে নুরুজ্জামান খাঁ বাঁধা দিলে নুর মোহাম্মদ খাঁ লোহার রড পিটিয়ে নুরুজ্জামানের বাম কানের পর্দা ফাঁটিয়ে দেয়। এছাড়া কবির হাওলাদার সহ অন্যান্যরা এলোপাথারি পিটিয়ে নুরুজ্জামানকে গুরুতর জখম করে। এসময় নুরুজ্জামানের স্ত্রী রোজিনা বেগম স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তাকেও পিটিয়ে আহত করে। গুরুতর আহত নুরুজ্জামানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। মামলার সূত্র ধরে আজ শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকরা ঘটনার সত্যতা জানতে ঘটনাস্থলে যান। তথ্য সংগ্রহের সময় হঠাৎ করে নাসির, রুহুল আমিনসহ ৭/৮ জনের একটি নারী-পুরুষের দল লাঠিসোটা নিয়ে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে মামলার বাদী নুরুজ্জামান, তার বাবা জলিল খাঁ ও ভাই শফিকুলের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। মো. নুরুজ্জামান খাঁ অভিযোগ করে বলেন, প্রকৃত ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য আমি চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় নুর মোহাম্মদ খাঁ তাদের নিজেদের বসতঘর ভাংচুর করে গত ২২ এপ্রিল আমাদের ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। আমি কিছুটা সুস্থ্য হয়ে গত ২৯ এপ্রিল নুর মোহাম্মদ খাঁ, নাসির হাওলাদারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করি। মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুজ্জামান জানান, উভয় পক্ষ পৃথক পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দুটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here