ঈদ উপলক্ষ্যে মঠবাড়িয়ার ইউএনও’র করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে সচেতনতা মূলক বার্তা - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Sunday, 24 May 2020

ঈদ উপলক্ষ্যে মঠবাড়িয়ার ইউএনও’র করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে সচেতনতা মূলক বার্তা

ঈদ উপলক্ষ্যে মঠবাড়িয়ার ইউএনও’র করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে সচেতনতা মূলক বার্তা

অনলাইন ডেস্কঃ প্রিয় মঠবাড়িয়াবাসী, আসসালামু আলাইকুম, হিন্দু ভাইদের কে নমস্কার। ঈদ মোবারক। সবাইকে ১৪৪১ হিজরি সনের পবিত্র ঈদ উল ফিতরের শুভেচ্ছা। এই দেশ আমাদের। প্রিয়জনসহ দেশকে ভাল রাখার দায়িত্বও আমাদের সকলের। আসুন সবাই মিলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনে করোনা প্রটোকল অনুযায়ী ঈদ উদযাপন করি। প্রিয় মাতৃভূমি ও প্রিয় জনের করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ভুমিকা পালন করি। আপনারা সবাই অবগত আছেন সমগ্র বিশ্বের ন্যায় আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিও করোনা ভাইরাস (কোভিড -১৯) সংক্রমণের কারণে গভীর সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আর সে কারণেই এবারের ঈদ উল ফিতর পালন করতে হচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্য প্রটোকল মেনে ভিন্ন আংগিকে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রদত্ত মেনে এবার খোলা মাঠের পরিবর্তে মসজিদে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠান করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সে মোতাবেক এবারে মঠবাড়িয়ার উপজেলার প্রধান জামায়াতে সকাল ৮ ঘটিকায় উপজেলার মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও উপজেলার সকল জামায়াত নিম্নোক্ত নির্দেশনামতে অনুষ্ঠিত হবে।

১. ঈদের জামায়াতের জন্য মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। নামাজের পুর্বে সম্পুর্ন মসজিদ জীবানুনাশক দিয়ে ভাল করে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করতে হবে।

২. করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে মসজিদে ওযুর স্থানে সাবান,হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে।

৩. মসজিদের প্রবেশদ্বারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও হাত ধোয়ার সাবানের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

৪. প্রত্যেককে নিজ নিজ বাসা থেকে ওযু করে আসতে হবে ও ওযু করার সময় কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে।

৫. ঈদের জামায়াতে মসজিদে আগত মুসুল্লিদেরকে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মসজিদের সংরক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করা যাবে না।

৬. নামাজের কাতারে দাড়ানোর ক্ষেত্রে এক কাতার অন্তর অন্তর দাড়াতে হবে।সামাজিক দুরত্ব স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।

৭. শিশু, বয়োবৃদ্ধ, অসুস্থ ব্যক্তি এবং অসুস্থদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তি ঈদের জামায়াতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

৮.সর্বসাধারণের সুরক্ষা নিশ্চিতকল্পে স্থানীয় প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে।

৯. করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে মসজিদে জামায়াত শেষে কোলাকুলি এবং পরস্পর হাত মেলানো পরিহার করতে হবে।

১০. আতশবাজি, পটকা ফোটানো থেকে বিরত থাকতে হবে।

তবে শংকার কথা আমাদের উপজেলায় অনেকেই ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা হতে প্রবেশ করেছেন। তাদেরকে আবশ্যিকভাবে হোম কোয়ারেন্টাইনে / প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে অনুরোধ করা হলো। অন্যথায় আপনাদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করা হবে। ঈদ মোবারক। ১৪৪১ হিজরি সনের পবিত্র ঈদ উল ফিতর আপনাদের সকলের জীবনে অনাবিল আনন্দ বয়ে নিয়ে আসুক। আপনারা ভাল থাকুন, ঘরে থাকুন, নিরাপদ থাকুন। প্রয়োজনে ফোন করুন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঊর্মি ভৌমিক , মঠবাড়িয়া পিরোজপুর।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here