মঠবা‌ড়িয়ায় জমি বি‌ক্রির নামে নুরুল হকের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ - মঠবািড়য়া সমাচার

শিরোনাম

Post Top Ad

Thursday, 28 May 2020

মঠবা‌ড়িয়ায় জমি বি‌ক্রির নামে নুরুল হকের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ

মঠবা‌ড়িয়ায় জমি বি‌ক্রির নামে নুরুল হকের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার:  পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার চরকখালী গ্রামে বড় ভাই সহ এলাকাবাসীর জমি ভোগ দখল ও বি‌ক্রির নামে রে‌জি‌স্ট্রি না দিয়ে প্রতারনা করে যাচ্ছে মৃত. হাজী আঃ রশিদ খানের ছোট ছেলে নুরুল হক খান । এর প্রতিকার চেয়ে বড় ভাই নুরুল ইসলাম খান স্থানীয় চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্য, আইন-আদালতের দ্বারস্থ হয়েও কোন সুরহা পাচ্ছে না। উল্টো নুরুল হক খান প্রতিনিয়ত ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শণসহ একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে আসছে। লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার বেতমোর ইউনিয়নের চরকখালী গ্রামের মৃত. হাজী আঃ রশিদ খানের ছেলে নুুরুল ইসলাম খান তার ক্রয় সূত্রে ৩ একর সম্পত্তি দীর্ঘ দিন ধরে ভোগদখল করে আসছে। নূরুল ইসলামের ছোট ভাই নুরুল হক খান তিনি সন্ত্রাসী দিয়ে জোর পূর্বক ওই সম্পত্তি দখল করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। তাছাড়াও নুরুল হক খান তার বড় ভাই নূরুল ইসলাম খানের বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে আসছে। এ হয়রানির প্রতিকার চেয়ে নূরুল ইসলাম স্থানীয় চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্য, আইন-আদালতের দ্বারস্থ হলে তারা বিভিন্ন সময় শালিস বৈঠকে মিমাংসা ও রোয়দাত করে দেয়। কিন্তু নুরুল হক খান কোন শালিস-বৈঠক, আইন-আদালতের তোয়াক্কা না করে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ওই সম্পত্তি জোর করে দখল করে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে নুরুল হকের ভাই নুরুল ইসলাম জানান, এম‌পি কে ভুল বুঝতে ও তার নাম ভাঙিয়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে জ‌মি দখল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে হয়রানী করছে, এর প্র‌তিকার চেয়ে এম‌পির কাছে আমি সহ এলাকাবাসী অভিযোগ জানালেও তি‌নি গুরুত্ব দেন‌নি। স্থানীয় কয়েকজন অভিযোগে জানান, মোজাম্মেলের কাছ থেকে ১০ কাঠা জমি কবলা দিবে বলে টাকা নিয়েছে। জমিও দেয়না, টাকা দেয় না। তৈয়ব আলীর কাছ থেকে ১০কাঠা জমির টাকা নিয়ে ১৭ বছরেও জমি দেইনি, মহাসিনের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে ২৬ বছরেও দেইনি, আমির হোসেনের কাছ থেকে ৪কাঠা জমির টাকা নিয়ে রেজিষ্ট্রি দেয়নি। তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে এলাকার অনেকেই মুখ খুলতেও সাহস পায়না। মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান মঠবাড়িয়া সমাচারকে জানান, অভিযোগ পেয়েছি। জমি সংক্রান্ত বিরোধ মিমাংসার চেষ্টা চলছে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad

Responsive Ads Here